আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে বিএনপি সরকারকে বারবার সংলাপে বসার আহ্বান জানালেও সম্ভাবনা একেবারে নাকচ করে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, বিএনপির সঙ্গে আলোচনায় বসার প্রশ্নই ওঠে না। খালেদা জিয়ার ছেলে মারা যাওয়ার পর যখন বাসায় দেখতে গেলাম, তারা আমার মুখের ওপর দরজা বন্ধ করে দিল, ভেতরে ঢুকতে দিল না। সেই দিনই আমি সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছি, আর তাদের সঙ্গে আমি বসব না, কোনো আলোচনা হবে না।

বিমসটেক সম্মেলনে যোগদান শেষে দেশে ফিরে রোববার বিকাল ৪টায় গণভবনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিএনপির সঙ্গে আলোচনায় বসার প্রশ্নই ওঠে না। আপনারা যে যা-ই বলেন না কেন, ক্ষমতায় থাকি আর না থাকি, তাতে কিছুই আসে-যায় না। আমার একটা আত্মসম্মানবোধ আছে।’

বিএনপিকে উদ্দেশ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি হুঙ্কার দিচ্ছে নির্বাচন করবে না। সেটা তাদের দলের ওপর নির্ভর করবে, এটা তাদের দলের সিদ্ধান্ত। আমাদের কী করার আছে? বিএনপি যদি মনে করে নির্বাচন করবে না, তাহলে করবে না। এখানে তো আমাদের বাধা দেয়ারও কিছু নেই বা দাওয়াত দেয়ার কিছু নেই, এটাই পরিষ্কার কথা।’

খালেদা জিয়া কারাগারে থাকার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপির এত নামিদামি আইনজীবী, ব্যারিস্টার অমুক-তমুক রয়েছে। তারা কেন পারল না প্রমাণ করতে যে খালেদা জিয়া নির্দোষ, তারা এতিমের টাকা নেয়নি। তাহলে এখানে আমাদের দোষ দিয়ে লাভটা কী। তবে তাদের নেত্রী বন্দি হয়ে আছে, তাদের আন্দোলন কই? তারা আন্দোলন করুক।’

উল্লেখ্য, কাঠমান্ডুতে চতুর্থ ‘বে অব বেঙ্গল ইনেশিয়েটিভ ফর মাল্টিসেক্টরাল টেকনিক্যাল অ্যান্ড ইকোনমিক কো-অপারেশন’ (বিমসটেক) সম্মেলনে যোগ দিতে গত বৃহস্পতিবার সকালে নেপাল যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দুদিনের সরকারি সফর শেষে শুক্রবার দেশে ফিরে আসেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here